আজ - ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, শনিবার, মে ১৮, ২০২৪ ০৭:৩০:২১

গলা ব্যথায় দশটি সেরা খাবার , ডাক্তারদের মতে !! | Ten best foods for sore throat, according to doctors!

by TBR
02 Oct, 2021
The Bangla Reader

গলাব্যথা নিরাময়ে সাহায্য করে এমন বেশ কিছু প্রাকৃতিক প্রতিকার পাওয়া যায়, আবার সরাসরি ঔষধে সেবনের মাধ্যমেও এর প্রতিকার পাওয়া যায় যার সবই স্বাস্থ্যকর এমন নয়। “বিশেষভাবে সরাসরি কাশির সিরাপ এবং ট্যাবলেট অনেকেই পছন্দ করেন না কারণ এর মাঝে কৃত্রিম রং এবং মিষ্টি জাতীয় অন্যান্য উপাদান থাকতে পারে, যা উত্তম নয় এবং অন্যান্য সমস্যার কারণ হতে পারে। এর পরিবর্তে আপনি প্রাকৃতিক উপায়ে কিছু গলা ব্যাথায় কার্যকরী উপায় পেতে পারেন। যেমনঃ



লবন পানির গার্গল: হালকা গরম পানিতে এক টেবিল চা চামচ লবণ, দিনে কমপক্ষে দুবার গার্গল করা, গলা ব্যথার জন্য অন্যতম বিকল্পগুলির মধ্যে একটি। “এটি আপনার গলাকে প্রশান্ত করার জন্য সহায়ক হবে কারণ লবন পানি গলার পিছন থেকে ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাস বের করে, এতে কোষগুলিকে পানিতে নিমজ্জিত হয় এবং অসমোসিসের মাধ্যমে সংক্রমণ বের হয়ে থাকে।

লো-সুগারের চকলেট: "অনেক চকলেটে খুব বেশি চিনি থাকে যা ব্যবহার না করে অল্প মাত্রার চিনি যুক্ত চকলেট সেবন করতে পারেন যা সাময়িকভাবে আপনার গলায় ব্যথা অসাড় করতে সাহায্য করে, যা স্বস্তি প্রদান করতে পারে।



লেবু, আদা এবং মধু চা: “অনেকেই এই উপায় টিকে পছন্দ করে কারণ চা ভিটামিন সি, সেইসাথে ব্যথানাশক, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, প্রদাহ-বিরোধী এবং মাইক্রোবায়াল বৈশিষ্ট্যগুলির একটি বিজয়ী সংমিশ্রণ প্রদান করে”

তবে যাইহোক ডাক্তার-অনুমোদিত এর পরামর্শ অনুযায়ী সেরা দশটি খাবার খেতে চেস্টা করুন যখন আপনি বিছানায় শুয়ে ভাবছেন যে আপনার গলা ব্যাথা এবং আপনি কি খেতে পারেন



চিকেন স্যুপ

গলা ব্যাথার কারন প্রদাহ এবং ডিহাইড্রেশনের। "মুরগির স্যুপের মতো তরল কেবল আপনার পানিশুন্যতাকেই  পূরণ করে না, এর লবণ আপনার শরীরের টিস্যুগুলির ভিতরে তরল ধরে রাখতে সহায়তা করে,"। আপন যদি নিরামিষাশী হন তাহলে কার্যত যেকোনো সবজির স্যুপ ও  এক্ষেত্রে একই ভাবে কার্যকর হতে পারে

মধু     

প্রাচীনকাল থেকে মধু  ঔষধি প্রতিকারের একটি প্রধান ভিত্তি। "আধুনিক বিজ্ঞান দেখিয়েছে  মধু বিভিন্ন ধরনের সংক্রমণের বিরুদ্ধে কার্যকর,সাধারণত যেগুলো ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাল  ঠান্ডার কারণ হয়ে থাকে সেগুলোর বিরুদ্ধে কার্যকর হয়ে থাকে”



দই

"দই প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট এবং স্বাস্থ্যকর ফ্যাটের পাশাপাশি প্রোবায়োটিক ব্যাকটেরিয়াগুলির একটি ভাল উৎস, যেগুলি উপকারী জীবাণু, যা ইমিউন ফাংশনকে সাহায্য করে এবং ক্ষতিকারক জীবাণুকে আমাদের শরীরে ধরে রাখা থেকে বিরত রাখে।"

"এর বাইরে, দইয়ের শীতল এবং নরম গঠনবিন্যাস এটিকে সহজেই গিলতে সাহায্য করে

আলু ভর্তা

ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমূহের সমৃদ্ধ উৎসের জন্য আলু সেরা, যা একটি শক্তিশালী ইমিউন সিস্টেম তৈরিতে সাহায্য করে। বিশেষ ভাবে খেয়াল করুন আপনার আলু ভর্তা যেনো খুব গরম না হয়, কারণ এটি আপনার গলাকে আরও জ্বালাতন করতে পারে।

ডিম

ডিম জিংক, আয়রন এবং সেলেনিয়ামের পাশাপাশি ভিটামিন ডি এবং বি 12 এর মতো খনিজ পদার্থ সমৃদ্ধ, যা আপনার গলা ব্যথা সৃষ্টিকারী সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করতে পারে।



ওটমিল

"সাধারণভাবে, যখন আপনার গলা ব্যথা হয় তখন খাওয়ার জন্য সর্বোত্তম খাবার হল ওটমিল বা নরম জমিনযুক্ত খাবার, যা আপনাকে আর বিরক্ত করবে না।" তাই হ্যাঁ, ওটমিল এর অবশ্যই কার্যকারীতা আছে

ওটমিল ম্যাগনেসিয়াম, জিংক এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ, যা শরীরের ডিটক্সিফিকেশন প্রক্রিয়াগুলিকে সচল করে, তারপর শরীরকে বর্জ্য এবং সংক্রমণ থেকে মুক্তি দেয়।

আদা

"আদার মধ্যে  ব্যথানাশক বা ব্যথা কমানো, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং প্রদাহ বিরোধী বৈশিষ্ট্য আছে। "এটি ব্যাকটেরিয়ার কিছু ক্ষতিকারক প্রজাতির বৃদ্ধিকেও বাধা দেয়।"

নিউট্রিশন জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় দেখা গেছে, আদা এবং মধুর সংমিশ্রণ একার চেয়ে বেশি কার্যকর বলে প্রমাণিত হয়েছে। যেহেতু অনেক গলা ব্যথা পোস্টনাসাল ড্রিপের সাথে থাকে, যা পেটকে জ্বালাতন করতে পারে এবং বমি বমি ভাব সৃষ্টি করতে পারে, "আদাই সেরা, যা বমি বমি ভাব প্রতিরোধ করতে পারে"



জেল-

আপনার গলা ব্যথায় জেল-ও একটি ভাল বিকল্প। চিনির ওপর নিয়ন্ত্রণ  রাখুন, উচ্চ-চিনির প্রয়োগ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে না পারা বা ক্ষতিগ্রস্ত টিস্যুগুলি মেরামত করতে না পারার কারন হয়ে থাকে

স্মুদি

স্মুদি হচ্ছে দুধ,দই বা আইসক্রিম দিয়ে বিশুদ্ধ তাজা ফলের একটি ঘন,মসৃণ পানীয়

পাতাকপিপালং শাক এবং আঙ্গুর এর মতো উপাদানগুলি দিয়ে স্মুদি খেতে পারেনযাতে চিনি কম এবং রোগ-প্রতিরোধী অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে বেশি থাকে

কমলা বা ট্যানজারিনের সাথে পানি ব্যবহার করুনযার মধ্যে ইনসুলিন-নিয়ন্ত্রক ফাইবার রয়েছে

ডাক্তার এর পরামর্শ অনুযায়ী "ভাইরাল সংক্রমণে গলাব্যথা রোগীদের জন্য প্রতিদিন ৩০০০ মিলিগ্রাম পর্যন্ত ভিটামিন সি এর ব্যবহার করতে পারেন যাতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় এবং আপনাকে দ্রুত পুনরুদ্ধার করতে সাহায্য করেবরফের গুঁড়ো বোনাস হিসেবে আপনার গলাকে আরও প্রশান্ত করতে সাহায্য করবে

আইসক্রিম

আইসক্রিম ও বিশেষ ভাবে ভালো হতে পারে কারণ এগুলো গলা ব্যথা প্রশমিত করতে সাহায্য করে এবং প্রদাহ কমাতেও পারেচিনির ব্যাবহার সেক্ষেত্রে খুবই কম হতে হবে



রিলেটেড পোস্ট / আরো পড়ুন

Subscribe to our newsletter

Join our monthly newsletter and never miss out on new stories and promotions.